টলি আকাশের ধ্রুবতারা ধ্রুব সরকার

0
185

পিনাকী চক্রবর্তী :
টলিউডে নতুন প্রজন্মের প্রতিশ্রুতিবান অভিনেতাদের অন্যতম হচ্ছেন ধ্রুব সরকার৷ এই ভারতীয় অভিনেতার জন্ম ১৯৮৪ সালে ২৮ মার্চ, পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায়৷ শুরুর দিকটা ২০১০ সাল,অতটা ভালো না হলেও, নিজের কেরিয়ারকে ফাস্ট গিয়ারে ছুটাতে খুব বেশী দিন অপেক্ষা করায়নি৷ শুরুতে বেশ কিছু নেগেটিভ চরিত্র তাঁকে অভিনেতা হিসেবে স্বীকৃতি দিলেও,”নেতাজী” সিরিয়ালে দর্শকদের মনে পাকাপাকি আসন পেয়ে যান৷ এরপর “কাদম্বিনী”, “মহাপীঠ তারাপীঠ” আর বর্তমানে “মিঠাই” সিরিয়ালে, সবকটি হিট সিরিয়ালেরই গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দাগ কেটে চলেছেন৷ টলিউড রিপোটারের বিশেষ রিপোর্ট৷

অভিনেতা ধ্রুব সরকার “নেতাজী” বাংলা সিরিয়ালে শরৎচন্দ্র বোসের চরিত্রে অভিনয় করেন৷ যারা যারা বাংলা সিরিয়ালের নাম শুনেই নাক সিঁটকান, “নেতাজী” সিরিয়ালটি মুহূর্তের জন্য হলেও তাঁদেরও চোখের পাতা ভিজিয়েছে৷ বাংলার টেলিসিরিয়ালের ইতিহাসে “নেতাজী” ইতিমধ্যেই আলাদা জায়গা করে নিয়েছে৷ শরৎচন্দ্র বোসের চরিত্রটি অন্যতম হয়ে রইবে৷ শুধু কর্তব্যপরায়ণ দাদা বা ভাই নয়, একজন উদারচেতা প্রেমিক, স্বামী, দেশকর্মী হিসেবে চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলেছেন ধ্রুব সরকার৷ তিনি দক্ষ অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি সঙ্গীত, সংস্কৃতি রসিকও৷ সঙ্গীতের মূর্ছনায় ডুবে থাকতে পছন্দ করেন৷ অভিনয়ের সাথে সাথে নিজেকে ফিট রাখবার সবরকম অনুশীলন করেন৷ অবসর সময় তিনি সঙ্গীতে, বই পড়ায় নিজেকে মাতিয়ে রাখেন৷ দিনে নিয়ম মাফিক বিশেষ সময় ধরে চলে দেহচর্চা৷ নিজের আকর্ষনীয় দেহ সৌষ্ঠবের পিছনের রহস্য হচ্ছে, বিশ্রামহীন নিরলস দেহচর্চার অনুশীলন৷ তাঁর দেহচর্চা নতুন প্রজন্মকে উৎসাহ দেবে৷ প্রতিদিন নিয়ম মাফিক নিজের প্রিয় টেরেসে প্রতিদিন তিনি জিম করেন৷ দীর্ঘ সময় ধরে অনুশীলনের পর তার ঘামে ভেজা শরীর থেকে উষ্ণতা ঝরেপরে, যেনও পুরুষালি মাদকতার মায়াজাল! ধ্রুব সরকারের মহিলা অনুরাগিনীরা প্রিয় সেলিব্রেটির এবসে মজে রয়েছে৷ অভিনয় আর শরীরের মেলবন্ধন বাঙালি গুটি কয়েক নায়কদের মধ্যে দেখা যায়৷ শরীর সচেতন নায়ক খাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট পরিসীমিত৷ সদাহাস্যময় মুখ, সাথে দৃঢ় চোখ আর পেশীবহুল বুকে বহু তরুণীর বুকে ঝড় তুলেছে৷ ব্যক্তিগত জীবনেও অত্যন্ত ভদ্র এবং নিজের ব্যক্তিগত জগৎ নিয়ে থাকতে বেশী পছন্দ করেন৷
লকডাউনের টানা সময়ে, যখন মানুষ নিজেকেই নিজে গৃহবন্দী করে ফেলে৷ নিজেরা একঘেঁয়ে বন্দী জীবনে ড্রিপেশনে চলে যাচ্ছিল৷ সেই সময় তিনি কিন্তু দিব্যি শরীর চর্চা নিয়ে খোশমেজাজে ছিলেন৷ সময়কে উপযুক্ত ভাবে ব্যবহারে বিশ্বাসী অভিনেতা ধ্রুব সরকার লকডাউনের সময়, গরমের সময় বা মরসুম শুরুর দিকে আলাদা আলাদা ভাবে পদ্ধতিগত ভাবে দেহচর্চা করেন৷ নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খুব একটা খোলামেলা নন৷ তবে পাঁট ফুট ৯ ইঞ্চি উচ্চতা, ফর্সা, সুন্দর আকর্ষনীয় পুরুষ অভিনেতার কোন বান্ধবী থাকবে না, তা কী হয়!! নিজের একটি বিলাসবহুল বাড়ি আছে৷ অবিবাহিত এই অভিনেতা বর্তমানে নিজের বাবা-মায়ের সাথেই থাকেন৷

অভিনেতা ধ্রুব সরকারের সুস্থ, দীর্ঘ ও সফল কর্মময় জীবনের জন্য টলি রিপোটার প্রার্থনা করছে৷ তাঁর সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য শুভেচ্ছা রইল আমাদের তরফ থেকে৷ ভালো থাকুন আপনি, আর বাংলার অসংখ্য দর্শকদের এমন ভাবেই আনন্দ দিন৷

Google search engine

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here