আগামী ৯ই জানুয়ারি থেকে উরিবাবাতে প্রচারিত হবে “ঝালাগান পালাগান”

0
105

টলি রিপোর্টার ডেস্ক : উড়িবাবা এবং বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের নিয়ে আসছে “ঝালাগান পালাগান- এ গ্র্যান্ড তরজা পালা” ।বাংলা এন্টারটেইনমেন্টে প্রথমবার ‘ঝালাগান পালাগান’ স্ট্রিমিং হবে উরিবাবাতে।

আবারো নতুন সিরিজে ‘বিরহী’ এর জনপ্রিয় দলকে দেখা যাবে।প্রতিভাবান প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য নির্মিত ঝালাগান পালাগানের পাঁচ-এপিসোড এর সিরিজটি মুক্তি পাচ্ছে আগামী ৯ই জানুয়ারি।

 

ট্রেলার লিঙ্ক

কবিগান এখনও গ্রামবাংলায় পরিবেশিত হয়। তেহাট্টোর হৃদয়ে শুট করা এই সিরিজটি বেশিরভাগই ‘কবির লোরাই’-এর রূপের উপর আঁকা হবে। র‌্যাপ, হার্ড রক, কীর্তন, আধুনিক গান, হিন্দি গানসহ বিভিন্ন ধরনের গান থাকবে।

স্থলে, জলে বা মহাকাশে যাই হোক না কেন বাঙালিরা চিরকাল ‘আড্ডা’ তে ডুবে থাকে। আড্ডার প্রকৃতি পরিবর্তন হয় কিন্তু ‘আড্ডা’ স্থির থাকে। উদাহরণস্বরূপ, একটি পাঁচ তারকা হোটেলের আড্ডা একটি চায়ের স্টলে বা জুমের উপরে যে আড্ডার মুখোমুখি হয় তার থেকে খুব আলাদা। স্থান যাই হোক না কেন, বাঙালির আড্ডা সম্পর্কে কিছু জিনিস রয়েছে যা চিরন্তন এবং অবিনশ্বর। উদাহরণস্বরূপ, বাঙ্গাল এবং ঘোটি বা ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান।

সিরিজটি একটি কস্টিউম ড্রামা আকারে উপস্থাপন করা হবে। উদাহরণস্বরূপ, ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগানের পর্বে ক্লাবের জার্সি পরা অংশগ্রহণকারীদের দেখাবে যখন উত্তম-সৌমিত্রের পর্বে অংশগ্রহণকারীদের এই দুই কিংবদন্তি অভিনেতার দ্বারা অভিনয় করা আইকনিক চরিত্রের পোশাক পরে অভিনয় করা হবে। গানের মাধ্যমে তারা একে অপরের সাথে তর্ক-বিতর্ক করবে।


“অনেকদিন আগেই ভেবেছিলাম যে বাঙালিদের যে চিরন্তন আড্ডা এবং যে বিষয়গুলো নিয়ে বাঙালিরা ঝগড়া করতে ভালোবাসে তার মধ্যে বিভিন্ন জমজমাট বিষয় রয়েছে যেমন ‘উত্তমকুমার – সৌমিত্রের ঝগড়া বা গ্রাম বনাম শহর বা ইস্টবেঙ্গল – মোহনবাগান’ এরম নিয়েই করার চেষ্টা। অভিনেতা ঋত্বিক আর আমি মিলে একটা প্রোডাকশন হাউস খুলেছি ১৮০ডিগ্রি, তো অনেক দিন ধরে ভাবছি যে এটা হচ্ছে বা হচ্ছে না করে দেখা গেলো যে আমরা বাংলা গ্রামের যে একটা গ্রামীণ কবিগান পালাগানের মতো যদি ভাবি এবং ওই ছোঁয়াটা রেখে আমরা যদি এটাকে করি, তো সেই অনুযায়ী দীপাংশু লেখেন এবং সাত্যকি গান পরিকল্পনা ও সুর সমস্ত কিছু করেন এবং এই ভাবনা চিন্তা টা আমারই করা, পরিচালনা করেছেন অরুনাভ মিত্র এবং নিলয় সমীরণ নন্দী, ক্যামেরা করেছেন জয়দীপ দে। তো এই রকম করে আমরা দেখলাম যে, যেহেতু একটু মনে এই ধরনের পালাগান কবিগান বহুকাল চর্চিত সেটাকে আমরা যদি ওয়েবে আমরা এটা করার চেষ্টা করি তবে কেমন হয়। তো এটাই তার ফল এবং এটা বেড়াচ্ছে ৯ তারিখে।” – বললেন সিরিজ নির্মাতা প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য।

‘ঝালাগান পালাগান’ হল একটি নতুন বিষয়বস্তুর রূপ যা বাংলা বিনোদনের ক্ষেত্রে আগে উপস্থাপিত হয়নি। প্রদীপ্ত দা একজন অন্যতম নির্মাতা যিনি সবসময়ই দর্শকদের কাছে অনন্য কিছু উপস্থাপন করেছেন। বিরোহীই, এই বছরের সবচেয়ে আলোচিত সিরিজ, বা তাঁর সিনেমা হোক, তিনি সবকিছু দিয়ে আমদের মুগ্ধ করেছেন” বলেছেন সৌরভ চক্রবর্তী, প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক, উরিবাবা

বিষয়গুলো হবে নিম্নরূপ-
শহুরে গ্রামীণ
উত্তম-সৌমিত্র
সরকারি চাকরি-বেসরকারি চাকরি
ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান
নারী পুরুষদের

অনুষ্ঠানের বিন্যাস:
ভূমিকা (পরিচয়)- সূত্রধর (কথক) দুই দলের পরিচয় করিয়ে দেবেন।

তরজা (বিতর্কের প্রধান) দুই দল তাদের গান দিয়ে শুরু করবে। তারা প্রথমে নিজেদের পক্ষের গুণগান গাইবে এবং তাদের গুণাবলী বর্ণনা করবে।

খেউর (প্রতিপক্ষদের উপহাস) – এই পর্যায়ে, দলগুলি একে অপরের সাথে লড়াই করবে এবং তর্ক করবে।

সিদ্ধান্ত (রেজোলিউশন)- ‘কবির লরাই’-এর ফলাফল এখন পর্যন্ত ঘোষণা করা হবে।

প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের ধারণায়, সায়ান ভট্টাচার্য অভিনীত, সাত্যকি চক্রবর্তীর সঙ্গীত এবং দীপাংশু আচার্যের সুরে সুর করা, ঝালগান পালাগান ৯ই জানুয়ারি থেকে উরিবাবাতে প্রচারিত হবে।

ভাবনা এবং পরিকল্পনা – প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্য
পরিচালনা – অরুনাভ মিত্র, নিলয় সমীরণ নন্দী
সম্পাদনা – অরুনাভ মিত্র, প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্য
সঙ্গীত পরিকল্পনা ও পরিচালনা – সাত্যকি ব্যানার্জি
গীতরচন – দীপাংশু আচার্য
নৃত্য পরিকল্পনা – শ্রাবন্তী ভট্টাচার্য
আলোকচিত্র পরিকল্পনা – জয়দীপ দে

উরিবাবা বাংলার প্রথম স্বাধীন ফ্রি কন্টেন্ট স্টেশন। ওয়েব সিরিজ, শর্ট ফিল্ম এবং মিউজিক ভিডিও থেকে কনসার্ট এবং ইনফোটেইনমেন্ট, সবকিছুই উরিবাবাতে আছে। প্রতিটি নতুন শো এর সাথে নিয়ে আসে এক নতুন কৌতুক, নাটক এবং প্রাণবন্ত শক্তি। এখন যেকোন জায়গা থেকে দর্শকেরা বিনামূল্যে অনলাইন বাংলা কন্টেন্ট দেখতে পারবেন।

Google search engine

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here